অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা ‘নব্য সাধু’ রতন - বিডিসি ক্রাইম বার্তা
ArabicBengaliEnglishHindi

BD IT HOST

অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা ‘নব্য সাধু’ রতন


bdccrimebarta প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১২, ২০২২, ৫:৩৩ অপরাহ্ন / ৫০
অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা ‘নব্য সাধু’ রতন

নিউজ ডেস্কঃ সিলেটের গোলাপগঞ্জে চাকরির প্রলোভনসহ বিভিন্ন অজুহাতে প্রতারণা করে প্রায় অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে সপরিবারে গা-ঢাকা দিয়েছেন রতন মনি দাশ (৩৫) নামের এক নব্য সাধু। তিনি উপজেলার লক্ষিপাশা ইউনিয়নের ঘোষগাঁও গ্রামের রঞ্জিত দাশের ছেলে। এ ঘটনায় গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরীও করেছেন এক ব্যবসায়ী।

কোর্টের মুহরি প্রতারক রতনের প্রতিবেশী নিতাই দাশের অভিযোগ, চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে বোনের দেড় লাখ টাকা এবং আমার ৭০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন রতন। কিছুদিন ধরে তার মোবাইল বন্ধ পেয়ে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি শুধু আমার নয়, তার আপন চাচাতো ভাই-বোন, ফুফাতো ভাই-বোন এবং গ্রামের একাধিক বন্ধু, পরিচিত লোকদের লোভনীয় চাকরির অফার দিয়ে নগদ কয়েক লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন রতন।

এলাকার প্রতারণার স্বীকার লোকজন জানান, প্রতারক রতন দাশ এনজিও প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। পাশাপাশি মালা, তিলক পরে টিকি ধরে একজন নব্য সাধু হিসাবে এলাকায় পরিচিত হয়ে উঠেন। এই সুবাদে অনেকের সঙ্গে তার পরিচয় গড়ে উঠে। রতন এই পরিচয়কে পুঁজি করে বিভিন্ন শিক্ষিত বেকার যুবকদের চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নেন। তার প্রতারণা থেকে বাদ যায়নি তার নিকটাত্মীয় স্বজনসহ প্রতিবেশীরাও।

গোলাপগঞ্জ বাজারের সিঙ্গার প্লাস শো রুম থেকে প্রায় ৭০টি ল্যাপটপ নিয়ে দুই সপ্তাহ ধরে তিনি লাপাত্তা। বর্তমানে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন রয়েছে বন্ধ। এদিকে রতনের স্বজনদের দাবি, রতন মনি সম্প্রতি ট্রেনিংয়ের কথা বলে ঢাকায় গেছেন। তার সঙ্গে তার স্ত্রী সন্তানদেরও নিয়ে গেছেন। স্বজনদের সঙ্গেও কোনো যোগাযোগ নেই। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি হয়েছে।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, রতনের বিরুদ্ধে আত্মসাৎ, প্রতারণার অনেক অভিযোগ রয়েছে। সপরিবারে গা ঢাকা দেয়ায় এসব অভিযোগ রহস্যের সৃষ্টি করেছে। পুলিশ অভিযোগ তদন্তের পাশাপাশি রতন ও তার পরিবারের সন্ধানে রয়েছে।#

bdccrimebarta