ফের ২ টি লাশ উদ্ধার, বর্ণনা দিলেন সেলিম দালালের বিরুদ্ধে - বিডিসি ক্রাইম বার্তা
ArabicBengaliEnglishHindi

BD IT HOST

ফের ২ টি লাশ উদ্ধার, বর্ণনা দিলেন সেলিম দালালের বিরুদ্ধে


bdccrimebarta প্রকাশের সময় : অক্টোবর ৬, ২০২২, ৮:০৬ পূর্বাহ্ন / ৪৬
ফের ২ টি লাশ উদ্ধার, বর্ণনা দিলেন সেলিম দালালের বিরুদ্ধে

কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ- কক্সবাজারের টেকনাফে ‘মালয়েশিয়াগামি ট্রলার ডুবির’ ঘটনায় বাহারছড়ার সমুদ্রসৈকত এলাকায় ভেসে আসা ফের দুই নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাদের বয়স আনুমানিক ২০-৩৫ বছর পর্যন্ত হতে পারে। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক নূর মোহাম্মদ।

বুধবার (৫ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১০ টার দিকে বাহারছড়ার ইউনিয়নের দক্ষিণ শীলখালী সমুদ্রসৈকতে একটি অপরটি চৌকিদার পাড়া ১ কি:মি: ব্যবধানে ১০ টা থেকে ১১ টার মধ্যে এই দুটি লাশ উদ্ধার করা হয় বলে জানান ওসি। গত দু’দিন আগে মালয়েশিয়াগামী রোহিঙ্গা নারী পুরুষ ট্রলার ডুবির ঘটনায় একে একে আসছে শিশু ও মহিলার লাশ।

এই নিয়ে এক শিশু সহ ৬ টি মহিলার লাশ কুলে এসেছে বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য গত মঙ্গলবার ভোর ৭:টার সময় মালয়েশিয়াগামী ট্রলার ডুবির ঘটনায় টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের হলবনিয়া গ্রামে ৪৫ জন নারী-পুরুষ জীবিত উদ্ধার করেছিলেন কোস্টগার্ড। এই পর্যন্ত শিশু সহ ৬ টি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ, তার মধ্যে অন্তত ৩৪ জন শিশু সহ নারী-পুরুষ নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে ট্রলার দুর্ঘটনার লোমহর্ষক বর্ণনা দেয়, উদ্ধারকৃত মহিলা সমজিদা,রুকিয়া, ও রহিমা, তারা বলেন, ট্রলারে ৬ দালালের মধ্যে করিম উল্লাহর পুত্র: সেলিম, আমাদের উপর নির্মম জুলুম নির্যাতনের মধ্য দিয়ে নৌপুলিশের ভয় দেখিয়ে আমাদের সঙ্গী প্রায় ২০/৩০ জন নারী- পুরুষ কে ট্রলারের বরফ কলের ভেতর ঢুকিয়ে উপরের প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেয়, এতে তারা নিঃশ্বাস নিতে না পেরে, বরফ ভাঙ্গার খুন্তি দিয়ে নিচের অংশ ছিদ্র করে দেয়, এতে নিচ থেকে পানি ঢুকে গেলে ট্রলার ডুবে যাওয়ার সময় উপরের লোকজন পানিতে লাফ দিয়ে সাঁতার কেটে কুলে পৌঁছলে ও ভেতরে থাকা মানুষ গুলো বক্সের মধ্যেই থেকে যায় বের হতে পারেনি।

এর আগে সেলিম সহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে মানবপাচার মামলা দায়ের করা হয়। এতে ৬ আসামি গ্রেফতার ও দেখানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পের মো. রশিদ, একই ক্যাম্পের বাসিন্দা মো. শরীফ, কক্সবাজারের মহেশখালী কুতুবজুম এলাকার বাসিন্দা করিম উল্লাহর পুত্র: মোঃ সেলিম (২৪), মহেশখালী ঘটি ভাঙ্গার আব্দুর রশিদের পুত্র:কোরবান আলী, ঈদগাঁহ হাজিপাড়ার রশিদ আহমদের পুত্র: আবদুল্লাহ (২০) ও টেকনাফের কাটাবনিয়া এলাকার হাসান আলীর ছেলে শহীদ উল্লাহ (২৮)।

এ বিষয়ে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক নূর মোহাম্মদ আরো জানান, তিনি রাত ১০: টায় খবর পেয়ে পৃথক এলাকা থেকে দুটি মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে। এই লাশগুলো ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ মালয়েশিয়াগামী হতে পারে ধারণা করেন তিনি।তবে মৃতদের কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি। লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন নিহতদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেলে মৃতদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। আর পরিচয় না পেলে আদালতের নির্দেশনা মত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।#

bdccrimebarta