শিশুদের স্থায়ী দাঁত না আসা পর্যন্ত দাঁতের যত্ন - বিডিসি ক্রাইম বার্তা
ArabicBengaliEnglishHindi

BD IT HOST

শিশুদের স্থায়ী দাঁত না আসা পর্যন্ত দাঁতের যত্ন


bdccrimebarta প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৩, ২০২২, ৭:১৮ অপরাহ্ন / ৩৬
শিশুদের স্থায়ী দাঁত না আসা পর্যন্ত দাঁতের যত্ন

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ অনেকেই দাঁত, মাড়ি ও মুখের বিভিন্ন সমস্যায় ভুগছেন। প্রথমে শিশুদের দুধদাঁত থাকে। এরপর পার্মানেন্ট বা স্থায়ী দাঁত গজায়। আজ আমরা একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছ থেকে শিশুদের পার্মানেন্ট দাঁত না আসা পর্যন্ত দাঁতের যত্ন সম্পর্কে জেনে নেব। নিয়মিত স্বাস্থ্য বিষয়ক অনুষ্ঠান স্বাস্থ্য প্রতিদিনের একটি পর্বে দাঁতের বিভিন্ন সমস্যা ও প্রতিকার নিয়ে কথা বলেছেন রাজ ডেন্টাল সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা ডা. মো. আসাফুজ্জোহা রাজ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেছেন ডা. মুনা তাহসিন।আমরা জানি, পার্মানেন্ট টিথ পরে আসে, আগে যে দুধদাঁত থাকে সেটি পড়ে যায় এবং তারপর পার্মানেন্ট টিথ আমাদের সবার আসে। মায়েদের বা পরিবারের অনেকের ধারণা থাকে, দাঁতে যদি কোনও ক্যারিজ থাকে বা ক্ষয় বা কোনও ধরনের দাঁতের সমস্যা থাকে, সেটি তো এমনিতেই পড়ে যাবে। এটির আর ট্রিটমেন্টের কোনও প্রয়োজন নেই। এ ধারণা কতটুকু সত্য? সঞ্চালকের এ প্রশ্নের জবাবে ডা. মোঃ আসাফুজ্জোহা রাজ বলেন, আপনি একটি ভালো পয়েন্ট ধরেছেন। আমাদের দেশের অধিকাংশ মা-বাবার ধারণা আপনি যেমনটি বলছিলেন; বাচ্চাদের দাঁত, এটার যত্ন নেওয়ার দরকার নেই, গর্ত হয়ে গেছে থাকুক। কিন্তু মনে রাখতে হবে বর্তমানে সৌন্দর্যের বিষয়টি অনেক বেশি নোটিশ করে থাকে সমস্ত জায়গা থেকে। বাচ্চাকে পরীক্ষা দেওয়ার সময়, পরবর্তীতে ইন্টারভিউ দেওয়ার সময়, দাঁত অনেক সুন্দর বিষয় ক্যারি করে। ডা. মোঃ আসাফুজ্জোহা রাজ বলেন, দাঁতকে সবল রাখতে হবে, সুস্থ রাখতে হবে। যে সমস্ত বাচ্চার দাঁত পড়ে যাওয়ার আগেই নষ্ট হয়ে যায়, সে ক্ষেত্রে পার্মানেন্ট বা স্থায়ী দাঁত সঠিক জায়গায় আসতে পারে না। দাঁত আঁকাবাঁকা হয়ে যেতে পারে, বড় আকারের হতে পারে। স্বাভাবিকভাবে উঠতে পারে না, এটাই বলতে চাচ্ছি। নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত সেটাকে রক্ষা করতে হবে। তার আগে যদি নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে দ্রুত ডেন্টাল ডাক্তারের কাছে নিতে হবে। দ্রুত এ কারণে বললাম, বাচ্চারা দাঁতের ডাক্তারের কাছে যেতে চায় না। মা-বাবা চিন্তা করে, বাচ্চা ব্যথা পাবে। ডা. মোঃ আসাফুজ্জোহা রাজ যুক্ত করেন, বাংলাদেশের ডাক্তারেরা এখন বিশেষ উপায়ে বাচ্চাদের জন্য একটি সেক্টর রাখছে, যেখানে তাঁদের আরাম করে ট্রিটমেন্ট করা যায়। ক্যাভিটির শুরুতে গেলেই ছোট্ট সহজ ট্রিটমেন্টের মাধ্যমে ফিলিং করিয়ে নিলে দাঁতটি পড়ে যাওয়ার আগ পর্যন্ত ভালো থাকবে। বাচ্চারা যদি ভয় পায়, মা- বাবা যদি নিয়ে না যায়, তাহলে গর্ত থেকে মজ্জা আক্রান্ত হয়ে যায়, তাহলে জটিল ট্রিটমেন্টের দিকে চলে যাবে।#

bdccrimebarta