ইউনিফর্ম পরে টিকটক করায় সাজা পাচ্ছেন পুলিশের ১৩ সদস্য - বিডিসি ক্রাইম বার্তা
ArabicBengaliEnglishHindi

BD IT HOST

ইউনিফর্ম পরে টিকটক করায় সাজা পাচ্ছেন পুলিশের ১৩ সদস্য


bdccrimebarta প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১২, ২০২২, ৪:২০ অপরাহ্ন / ৬৯
ইউনিফর্ম পরে টিকটক করায় সাজা পাচ্ছেন পুলিশের ১৩ সদস্য

বিডিসি ক্রাইম বার্তা ডেস্কঃ– ইউনিফর্ম পরে টিকটক করায় সাজা পাচ্ছেন পুলিশের ১৩ সদস্য। অভিযুক্ত ১৩ কনস্টেবল হলেন— আয়েশা বেগম (টাঙ্গাইল), আইরিন আক্তার (পিরোজপুর), সমাপ্তি ইসলাম (পিটিসি, রংপুর), আবু হানিফা নিপু (হবিগঞ্জ), রিপন চাকমা (আরআরএফ, চট্টগ্রাম), রিমন বড়ুয়া (আরআরএফ, চট্টগ্রাম), মো. রায়হান উদ্দিন (আরআরএফ, চট্টগ্রাম), কামরুন্নাহার আক্তার (নোয়াখালী), সাকিরা আক্তার (হবিগঞ্জ), শাহানা পারভীন শম্পা (মাগুরা), মোছা. রশনি ইয়ারা (পিটিসি, টাঙ্গাইল), রেজাউল করিম (আরআরএফ, চট্টগ্রাম) ও মো. আশিকুল হক (ঝালকাঠি)। গত বছর ডিএমপি বিভিন্ন ইউনিটে ‘পুলিশের ইউনিফর্ম পরে টিকটক- লাইকি অ্যাপ ব্যবহার করে ভিডিও বানাতে বা শেয়ার করার ক্ষেত্রে পুলিশ সদস্যদের আরও সতর্ক থাকার নির্দেশনা পাঠিয়েছিল।

ওই নির্দেশনায় বলা হয়, ডিএমপির কতিপয় পুলিশ সদস্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে রাষ্ট্রবিরোধী ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রচার করছেন। ‘পুলিশের ইউনিফর্ম পরে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ার মতো অঙ্গভঙ্গি করে ভিডিও ধারণ করে তা টিকটক হিসেবে আপলোড করা হয়। এ ধরনের কার্যকলাপ রোধে পোস্টদাতাকে চিহ্নিত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনায় প্রতিটি ফোর্সের ইনচার্জদের সহকর্মীদের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ব্যবহারের বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করতে বলা হয়েছে। পুলিশের পোশাক পরে অথবা পুলিশবিষয়ক কোনো পোস্ট ফেসবুকে আপলোডের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে। এছাড়া সরকারি প্রতিষ্ঠানের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ব্যবহার নির্দেশিকা-২০১৯ মেনে চলতে হবে।

আদেশে বলা হয়েছে, পুলিশের ইউনিফর্ম পরে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ার মতো অঙ্গভঙ্গি করে ভিডিও ধারণ করে তা টিকটক হিসেবে আপলোড করা হয়। ওই ভিডিও কন্টেন্ট গুলোতে অনেকের নেতিবাচক মন্তব্য রয়েছে। ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার হাফিজ আক্তার গণমাধ্যম কে বলেন, অভিযুক্ত ১৩ পুলিশ সদস্য আপত্তিকর ভিডিও কন্টেন্ট তৈরি করে তা টিকটক বানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হয়। যা পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।#

bdccrimebarta