• রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১১:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বেনাপোল বন্দরে ১৮ কোটি টাকা মূল্যের কেমিকেল চালান জব্দ মুন্সীগঞ্জে চুরি অপবাদে মারধর ঘটনায় আদালতে মামলা ছাত্রলীগের নিষেধ উপেক্ষা করে ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ দুর্নীতি লুটপাট বিরোধী সাংবাদিকতায় ভিন্নমাত্রা আম নিয়ে কষ্টগাঁথা সাংবাদিক জুয়েল খন্দকারের বিরুদ্ধে কাউন্সিলরের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সভা মুন্সীগঞ্জে পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ ও পুরস্কার বিতরণী সিদ্ধিরগঞ্জে হায়েস যোগে ফিল্মি স্টাইলে সোয়া ৪ লাখ টাকা ছিনতাই; মামলা হয়নি এখনও মুন্সীগঞ্জে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে টেঁটাবিদ্ধ সাংবাদিকসহ আহত ২০ গ্রেফতার ৯ বেনজীরের তকমা’ লাগিয়ে কালো তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান গুলো পুলিশের কাপড়ের ঠিকাদারী নিতে মরিয়া

ভেদরগঞ্জে আওয়ামী লীগ অফিস দখল করে মুদি দোকান

Reporter Name / ১৬৯ Time View
Update : বুধবার, ৩ আগস্ট, ২০২২

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার ছয়গাঁও ইউনিয়নের মনুয়া বাজারে স্থানীয় ৭ ও ৮নং আওয়ামী লীগের স্থায়ী কার্যালয় দখল করে মুদি দোকান দিয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতা লোকমান হোসেন দপ্তরী। ওই কার্যালয়ের দেয়ালে সাঁটানো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় নেতা মরহুম আব্দুর রাজ্জাক ও শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাকের ছবির ওপর বেঁধেছে মাকড়সা বাসা।

এঘটনা জানাজানি হলে এলাকায় তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সরেজমিন গিয়ে ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৬ ফেব্রæয়ারী ভেদরগঞ্জ উপজেলার আওয়ামীলীগের ঘাঁটি খ্যাত ছয়গাঁও ইউনিয়নের ৭ ও ৮ নং ওয়ার্ড (মনুয়া বাজার) আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের স্থায়ী ভবনটি উদ্বোধন করেন, শরীয়তপুর-৩ আসনের সাংসদ নাহিম রাজ্জাক।

তবে প্রায় ১ বছর আগে মনুয়া বাজারে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের কারণে প্রায় ১০ টি দোকান উচ্ছেদ করে দিয়েছিল ভেদরগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন। ওই ১০টি দোকানের মধ্যে ৮ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি লোকমান হোসেন দপ্তরীরও ১টি দোকানও উচ্ছেদ করা হয়। এরপর সে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে স্থানীয় আওয়ামীলীগের কার্যালয়টি দখল করে মুদি দোকান বসিয়েছেন।

সম্প্রতি এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলেও স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতারা ক্ষোভ প্রকাশ করে। অন্যদিকে দেখা যায়, দোকানের বিভিন্ন মুদি মালামাল পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকলেও কার্যালয়ের দেয়ালে সাঁটানো জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় নেতা মরহুম আব্দুর রাজ্জাক ও শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাকের ছবির ওপর বেঁধেছে মাকড়সা বাসা।

তবে লোকমান দপ্তরী অনেক প্রভাবশালী হওয়ায় ভয়ে মুখ খুলতে রাজি হয়নি কেউ। তবে বুধবার দুপুরে সাংবাদিক উপস্থিতির টের পেয়ে দোকানে তালা মেরে সটকে পড়ে লোকমান।এ  ব্যাপারে ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি লোকমান হোসেন দপ্তরীর বলেন, আমার দোকান ভেঙে দেওয়ার পর আমি ইউনিয়ন নেতাদের জানিয়ে এখানে দোকান বসিয়েছি। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীসহ অন্যান্যদের ছবিতে মাকড়শা বাসা বাঁধল কীভাবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি খেয়াল করিনি। পরিষ্কার করে দেব।

এ ব্যাপারে ভেদরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি তোফাজ্জেল হোসেন মোড়ল বলেন, বিষয়টি অত্যন্ত নিন্দনীয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় নেতা মরহুম আব্দুর রাজ্জাক ও শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাকের ছবিতে যাদের সামনে মাকড়সা বাসা বাঁধে, তারা স্বাধীনতা বিরোধী। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।#

Please Share This Post In Your Social Media


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category