• রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১০:১০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বেনাপোল বন্দরে ১৮ কোটি টাকা মূল্যের কেমিকেল চালান জব্দ মুন্সীগঞ্জে চুরি অপবাদে মারধর ঘটনায় আদালতে মামলা ছাত্রলীগের নিষেধ উপেক্ষা করে ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ দুর্নীতি লুটপাট বিরোধী সাংবাদিকতায় ভিন্নমাত্রা আম নিয়ে কষ্টগাঁথা সাংবাদিক জুয়েল খন্দকারের বিরুদ্ধে কাউন্সিলরের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সভা মুন্সীগঞ্জে পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ ও পুরস্কার বিতরণী সিদ্ধিরগঞ্জে হায়েস যোগে ফিল্মি স্টাইলে সোয়া ৪ লাখ টাকা ছিনতাই; মামলা হয়নি এখনও মুন্সীগঞ্জে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে টেঁটাবিদ্ধ সাংবাদিকসহ আহত ২০ গ্রেফতার ৯ বেনজীরের তকমা’ লাগিয়ে কালো তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান গুলো পুলিশের কাপড়ের ঠিকাদারী নিতে মরিয়া

প্রেমিকের সাথে ঝগড়া করে প্রেমিকার আত্মহত্যা

Reporter Name / ১১৩ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ- প্রেমিকের সঙ্গে ঝগড়া করে শরীয়তপুর পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী তয়না আক্তার (১৮)। বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে ৪ নং ওয়ার্ডের তুলাসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তয়না আক্তার তুলাসার গ্রামের নুরুজ্জামান ফকিরের ছোট মেয়েে প্রেমিক এন এস নয়ন (২২) একই গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী তয়নার সঙ্গে একই কলেজের বিএম প্রথম বর্ষের ছাত্র নয়নের গত তিন বছর যাবত প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। সম্প্রতি তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হলে নয়নের সঙ্গে অন্য একটি মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত রাতে মেসেঞ্জারে কেউ একজন নয়নের সঙ্গে আরেকটি মেয়ের ঘনিষ্ঠ কয়েকটি ছবি দেয় তয়নাকে।

ছবি দেখার পর রাতেই বন্ধুদের এসএমএস দিয়ে বৃহস্পতিবার ভোরে নিজ রুমে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে তয়না। পরে বিড়ালের ডাকের শব্দে ঘুম ভাঙ্গে পরিবারের। তয়নার রুমে গিয়ে দেখেন ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছে তয়না। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিহতের বাবা নুরুজ্জামান ফকির বলেন, গতকাল রাতেই ওই নয়ন আমার মেয়েকে অকথ্য ভাষায় অনেক গালিগালাজ করেছে। যে তোর সাথে এতদিন সম্পর্ক করেছি টাইম পাস করার জন্য। তুই একটা ড্রাইভারের মেয়ে খারাপ মেয়ে। আমার সোনার টুকরার মেয়ে এমনে চইলা যাইব যদি জানতাম সারারাত আমি পাহারা দিতাম। আইনের মাধ্যমে আমি ওই নয়নের বিচার চাই।

পালং থানার ওসি মো. আক্তার হোসেন বলেন, একটি ছেলের সাথে প্রেম ঘটিত বিষয় নিয়ে মনমালিন্য হওয়ায় মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে। এখন আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলার প্রস্তুতি চলছে। ময়না তদন্ত শেষ হয়েছে এখন পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।#

Please Share This Post In Your Social Media


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category